সাম্প্রতিক বইসমূহ :
সাম্প্রতিক বইসমূহ

Amarboi offers a New Nexus 7 to a lucky winner.



  1. All new and active members will have chance to win a Google Nexus 7 16GB Wifi  only (2013) Tablet.
  2. A new member can subscribe from now until 25th December 2014.
  3. We will announce the winner's name on 1st January 2015.

If you have any question please comment below.

রাজনীতিবিদগণ - হুমায়ুন আজাদ

Rajnitibidgon - Humayun Azad রাজনীতিবিদগণ - হুমায়ুন আজাদ
হুমায়ুন আজাদকে একবার প্রশ্ন করা হয়েছে : দেশে হু হু করে বাড়ছে চায়নিজ রেস্টুরেন্ট, বিউটি পার্লার অথচ সেই হারে বাড়ছে না পাবলিক লাইব্রেরি– এই ব্যাপারে আপনার মন্তব্য কী ?
হুমায়ুন আজাদ : "এতে এই রাষ্ট্র কতো অসুস্থ তার পরিচয় বহন করে। কথা হচ্ছে, কেন পাঠাগার বাড়ছে না? কেন চায়নিজ রেস্টুরেন্ট বা বিউটি পার্লার বাড়ছে? বোঝা যাচ্ছে যে, এক গোত্র প্রচুর টাকা উপার্জন করছে, অবৈধভাবে উপার্জন করছে, সেই টাকা অপচয় করার জন্য তাদের এখন নানা জায়গা দরকার। সেই টাকা অপচয় করার জন্য একটি স্থান হচ্ছে চায়নিজ রেস্টুরেন্ট, আরেকটি জায়গা হচ্ছে বিউটি পার্লার, আরো জায়গা আছে– সুপার মার্কেট বা চার তারা , তিনতারা হোটেল– এই জাতীয় স্থুল ব্যাপারে, অবৈধভাবে যারা অর্থ উপার্জন করছে, তারা লিপ্ত হয়ে রয়েছে কিন্তু বই মননশীল ব্যাপার। আমাদের রাষ্ট্র যারা চালায় তারা মননশীল নয়।
আমাদের আমলা-সেনাপতি-বিচারপতি-অধ্যাপক–প্রকৌশলী-চিকিৎসক কারো মননশীলতা নেই, বই তাদের চিন্তার মধ্যেও নেই। কাজেই পাঠাগার কী করে বাড়বে ? বোঝা যাচ্ছে, যে মানুষেরা আমাদের রাষ্ট্রকে নিয়ন্ত্রণ করছে, তারা শক্তিশালী, বই তাদের প্রয়োজন নয়; না হলে পাঠাগার বাড়তো। পাঠাগার প্রয়োজন হচ্ছে ছাত্রের এবং জ্ঞান মনস্ক মানুষের, তাদের কোন ক্ষমতা নেই, তাদের কোন অর্থশক্তি নেই যে তারা পাঠাগার বানাবে এবং আমাদের রাষ্ট্র পাঠাগার চায়না। আমাদের রাষ্ট্র ঐ চায়নিজ রেস্টুরেন্ট চায়, বিউটি পার্লার চায়, সুপার মার্কেট চায় এবং নতুন নতুন পাজেরো চায়; মননশীলতা চায় না, সৃষ্টিশীলতা চায় না। কাজেই পাঠাগার বাড়ছে না।"
আমারবই.কম এর প্রিমিয়াম সদস্য হতে চাইলে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন
কোন ডাউনলোড লিঙ্ক কাজ না করলে, নিচের কমেন্টস বক্সে লিখে আমাদের জানিয়ে দিন, আমরা যথা সম্ভব দ্রুততার সাথে আবার আপলোড করে দেবো।

মুসলমানমঙ্গল - জাকির তালুকদার

amarboi.com
মুসলমানমঙ্গল - জাকির তালুকদার
উপন্যাসটি সম্পর্কে প্রকাশকের তরফে জানানো হচ্ছে: “জাকির তালুকদার, কারো কারো মতে, হয়ে উঠতে যাচ্ছেন, বাংলাদেশের নতুন প্রজন্মের সবচেয়ে অগ্রগামী চিন্তার কথাসাহিত্যিক। সমকালীন বাঙালি মুসলমান সমাজ ও মননকে ইসলামের ইতিহাস, ধর্মতত্ত্ব ও দর্শনের মধ্যে প্রক্ষিপ্ত করে লিখিত হয়েছে ‘মুসলমানমঙ্গল’। আমরা বিনীত অহংকারের সঙ্গে বলতে চাই এই ধরনের উপন্যাস বাংলাভাষায় এটাই প্রথম।”
বইয়ের শেষ প্রচ্ছদে আছে: “বাহিরের দিকে আছে তথাকথিত উন্নত বিশ্বের মানুষ। তারা কিছু ভিক্ষে, সাহায্য ও ঋণচক্রজালের সাথে প্রতিনিয়ত অবজ্ঞা ও ঘৃণা ছিটিয়ে চলে আমাদের মুখে। আর ভেতরের দিকে রয়েছে আমাদের পাহাড়সমান জাতীয় অজ্ঞতা, পূর্ণাঙ্গ মানুষ হিসাবে গড়ে উঠতে মানুষের অনীহা, ধর্মের নামে প্রতারিত হওয়ার জন্য উন্মুখ হয়ে থাকা, সারাজীবন ভুল নেতৃত্ব নির্বাচন, আত্মসম্মানবোধের অভাব, বিহর্বিশ্বে নিজেদের অবস্থান সম্পর্কে ধারণাহীনতা এবং সর্বোপরি নিজেকে চিনতে চেষ্টা না করার বেদনাদায়ক অথর্বতা।… এই উপাখ্যান তাই এক অর্থে রক্তাক্ত বেদনারও উপাখ্যান।”
উপন্যাসটি ‘আত্মসমালোচনাপর্ব’ ও ‘মোকাবিলাপর্ব’ এই দুই অংশে বিভক্ত। উপন্যাসের শেষে ঔপন্যাসিক তথ্য, উদ্ধৃতি ও ধারণার জন্য বিবিধ উৎসের ঋণ স্বীকার করেছেন।
পাঠক বইটি পড়বে এটাই আমাদের মৌলিক উদ্দেশ্য। আমরা চাই পাঠক বইটি পড়ুক, আলোচনা, সমালোচনা করুক, তাহলেই আমাদের সার্থকতা। নইলে এতো কষ্ট বৃথা, তাই আপনাদের মন্তব্যের অপেক্ষায় রইলাম। আর্থিক ভাবে আমাদের সহায়তা করবার জন্য, অনুরোধ রইলো আমারবই.কম এর প্রিমিয়াম সদস্য হবার। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন এছাড়া কিছু সমস্যার কারনে আমরা আমাদের ডাউনলোড লিংকে পরিবর্তন এনেছি। এখন থেকে ফাইলটি ডাউনলোড করবার পর পাসওয়ার্ড হিসেবে amarboi.com ব্যবহার করুন। আর কিভাবে বই ডাউনলোড করবেন জানতে এইখানে ক্লিক করুন
You can follow us on Twitter or join our Facebook fanpage or even follow our Google+ Page to keep yourself updated on all the latest from Bangla Literature. Also try our chrome extension.

বসন্ত বিলাপ - হুমায়ূন আহমেদ

bosonto-bilap-humayun-ahmed
বসন্ত বিলাপ - হুমায়ূন আহমেদ [২০১২]
বসন্ত বিলাপ: হুমায়ূন আহমেদ \ প্রকাশক: প্রথমা প্রকাশন \ প্রকাশকাল: নভেম্বর ২০১২ \ প্রচ্ছদপট: কাইয়ুম চৌধুরী \ পৃষ্ঠা সংখ্যা: ১৬০
All books password is amarboi.com
এই বইয়ের সূচিপত্রে চোখ বোলালেই প্রাথমিকভাবে এ রকমের একটা ধারণা পাওয়া যাবে যে লেখক হুমায়ূন আহমেদ কত বিচিত্র বিষয়কে ধারণ করতে চেয়েছেন! দুটি মাত্র ছোটগল্প ছাড়া নানা উপলক্ষে লেখা এই বইয়ের অন্তর্গত রচনা ও প্রদত্ত সাক্ষাৎকারগুলো পাঠককে বিষয়সম্পৃক্ত দিকগুলো নিয়ে কেবল নতুন করে ভাবাবে না, এ রকম সিদ্ধান্তেও তাকে আসতে প্রাণিত করবে যে হুমায়ূন কল্পনাবিলাসী কথাসাহিত্যিক মাত্র নন, কিছু কিছু ক্ষেত্রে মৌলিক চিন্তাভাবনারও অধিকারী। ‘আমরা কোথায় চলেছি?’ এবং ‘বাউল ভাস্কর্য/এখন কোথায় যাব, কার কাছে যাব’ শীর্ষক মন্তব্য-ভাষ্যে যে বক্তব্য তিনি পেশ করেন, তার সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করার অবকাশ কোথায়?
পিলখানা হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে তাঁর যে হাহাকারদীর্ণতা, তা যেন হয়ে উঠেছে সারা জাতিরই মর্মচেরা বিলাপের ধ্বনি।
‘স্মৃতি’ পর্বের লেখাগুলোর মাধ্যমে হুমায়ূন পাঠককে অন্য এক জগতে নিয়ে যাবেন। পরিহাসপ্রিয়তায় সিক্ত রচনার পাশাপাশি এখানে আছে স্মৃতিমেদুর একটি লেখা। শিরোনাম ‘আমার বাবার জুতা’। ‘এক এবং একা’, ‘হাবলঙ্গের বাজার’ ও ‘বসন্ত বিলাপ’ পড়া শেষে মন যেমন হালকা মেঘের সওয়ার হয়ে উঠবে, তেমনি ‘আমার বাবার জুতা’ সংবেদনশীল পাঠককে নিমেষে আবেগকম্পিত করে তুলবে। সামান্য নিদর্শন তুলে ধরা যাক স্মৃতিকাতর সেই রচনা থেকে। তার আগে জানাই, হুমায়ূনের বাবাকে পাকিস্তানি সেনারা হত্যা করেছিল। কিন্তু খবরটি তাঁর মা কিছুতেই বিশ্বাস করতে পারছিলেন না। হুমায়ূনের ভাষায়, এই দুঃসংবাদ শোনার পর তাঁর মা ডেকে বললেন, ‘তোরা এই লোকগুলোর কথা বিশ্বাস করিস না। তোর বাবা সারা জীবনে কোনো পাপ করেনি। এ রকম মৃত্যু তার হতে পারে না। তোর বাবা অবশ্যই বেঁচে আছে।’
কিন্তু দেশ স্বাধীন হওয়ার পর হুমায়ূনের সেই মা ঢাকা থেকে পিরোজপুরে গেলেন। নদীর পাড়ে, যেখানে বাবাকে কবর দেওয়া হয়েছিল বলে দাবি করা হয়েছে, সেই জায়গা নিজে উপস্থিত থেকে খোঁড়ালেন। কবর থেকে লাশ তোলা হলো। শরীর পচে গলে গেছে, কিন্তু নাইলনের মোজা অবিকৃত। মা পায়ের মোজা, দাঁত, মাথার চুল দেখে বাবাকে শনাক্ত করলেন, তাঁর স্বামী বেঁচে নেই। এভাবে ব্যক্তিজীবনের যে বিয়োগান্ত ঘটনা হুমায়ূন তুলে ধরেন, তা আর কেবল তাঁর একার হয়ে থাকে না, প্রতিটি শহীদ পরিবারে পরিব্যাপ্ত হয়ে যায়।
‘ক্রিকেট’ পর্বে আছে মোট তিনটি লেখা। রম্যধাঁচের লেখাগুলোর ভেতর দিয়ে ফুটে উঠেছে খেলাটির প্রতি হুমায়ূনের গভীর প্রীতি ও ভালোবাসার কথা। ‘মাঠরঙ্গ’ রচনাটি পাঠককে দেবে অনাবিল আনন্দ। প সাহিত্যকর্মের বাইরে সংস্কৃতির ভিন্ন দুটি শাখায় হুমায়ূনের আত্মনিবেদনের বিষয়ে জানতে হলে এই নিবন্ধ চারটি পড়া বাঞ্ছনীয়।
‘মৃত্যুচিন্তা’ পর্বে আছে মাত্র একটি সংক্ষিপ্ত অথচ পরমপাঠ্য নিবন্ধ। শিরোনাম ‘মাইন্ডগেম’।
‘ছোটগল্প’ পর্বে আছে দুটি গল্প। একটির শিরোনাম ‘শবযাত্রী’, অন্যটির ‘রস, কষ, সিঙাড়া, বুলবুলি, মস্তক’। অনন্য এই গল্প দুটি পাঠ করে পাঠক অভাবিত আনন্দের সহচর হবেন।
এই গ্রন্থের ‘সাক্ষাৎকার’ পর্বটি সবচেয়ে ঋদ্ধ অংশ। মোট আটটি ছোট-বড় সাক্ষাৎকারে হুমায়ূন আহমেদ এমন অনেক কথা বলেছেন, যা গভীর থেকে গভীরতর অনুভবসিক্ত উচ্চারণেরই নামান্তর। তিনি যখন এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘সমুদ্র আমাদের মা। সমুদ্র আমাদের ডাকবে না তো কে ডাকবে? আমরা হচ্ছি স্তন্যপায়ী’ অথবা ওই একই সাক্ষাৎকারে যখন তিনি জানান, ‘আমাদের প্রাণের শুরু সমুদ্র থেকে। সে জন্য আমাদের রক্তের ঘনত্ব আর সমুদ্রের পানির ঘনত্ব এক। আমাদের রক্তের আরএইচ আর সমুদ্রের আরএইচ এক। আমাদের শরীরের লবণাক্ততা সমুদ্রেরই মতো। সেহেতু সমুদ্র দেখলে সমুদ্রের কাছে যেতে ইচ্ছে করে আমাদের’, তখন থমকে গিয়ে ভাবতে হয়। অথবা যখন তিনি বলেন, ‘নিজের লেখা সম্পর্কে আমার অহংকার অনেক বেশি’, তখনো কি মুখ ফিরিয়ে নেওয়া যাবে লেখক হুমায়ূনের দিক থেকে?
বস্তুত, এ বইয়ের সাক্ষাৎকারগুলো থেকে তাঁর মনোজগৎ অর্থাৎ তাঁর মনস্তত্ত্ব, তাঁর জীবন-দর্শন, সমাজ, রাজনীতি ও পরিপার্শ্ব ভাবনা, নিজের সাহিত্যকর্ম সম্পর্কে তাঁর মনোভঙ্গি, তাঁর জীবনাচার, জীবন ও মৃত্যু, বিশ্বাস, অবিশ্বাস, আধিভৌতিকতা, ধর্মবোধ, সর্বোপরি মানবিক মানুষ হুমায়ূন সম্পর্কে একটা সার্বিক ধারণা পাওয়ার প্রায় কাছাকাছি পৌঁছে যেতে পারি আমরা। সে বিচারে এ বই হুমায়ূন আহমেদের প্রায় আত্মজীবনীরই নিকটাত্মীয়।
পাঠক বইটি পড়বে এটাই আমাদের মৌলিক উদ্দেশ্য। আমরা চাই পাঠক বইটি পড়ুক, আলোচনা, সমালোচনা করুক, তাহলেই আমাদের সার্থকতা। নইলে এতো কষ্ট বৃথা, তাই আপনাদের মন্তব্যের অপেক্ষায় রইলাম। আর্থিক ভাবে আমাদের সহায়তা করবার জন্য, অনুরোধ রইলো আমারবই.কম এর প্রিমিয়াম সদস্য হবার। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন এছাড়া কিছু সমস্যার কারনে আমরা আমাদের ডাউনলোড লিংকে পরিবর্তন এনেছি। এখন থেকে ফাইলটি ডাউনলোড করবার পর পাসওয়ার্ড হিসেবে amarboi.com ব্যবহার করুন। আর কিভাবে বই ডাউনলোড করবেন জানতে এইখানে ক্লিক করুন
You can follow us on Twitter or join our Facebook fanpage or even follow our Google+ Page to keep yourself updated on all the latest from Bangla Literature. Also try our chrome extension.
 
Support : Visit our support page.
Copyright © 2011. Amarboi.com - All Rights Reserved (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি)
Website Published by Amarboi.com
Proudly powered by Blogger.com