সাম্প্রতিক বইসমূহ :
সাম্প্রতিক বইসমূহ

উত্তরাধিকার - সমরেশ মজুমদার

কালবেলা - সমরেশ মজুমদার কালবেলা - সমরেশ মজুমদার

ইতিপূর্বে ইন্টারনেটে যে স্ক্যান কপিটি রয়েছে সেটির কোয়ালিটি ভালো না হওয়ায় আমারবই তাদের মতো করে নতুন করে স্ক্যান করেছে। আশাকরি আপনাদের ভালো লাগবে।

Download and Join our Facebook Group

বঙ্গ মনীষীদের রঙ্গ রসিকতা - আংশুমান চক্রবর্তী

Bango Monishider Rango Roshikata by Angshuman Chakrabarty বঙ্গ মনীষীদের রঙ্গ রসিকতা - আংশুমান চক্রবর্তী

Download and Join our Facebook Group

কাল নিরবধি - আনিসুজ্জামান

কাল নিরবধি - আনিসুজ্জামান কাল নিরবধি - আনিসুজ্জামান

আনিসুজ্জামান (জন্ম ১৯৩৭) বলেছেন নিজের জীবনের কথা, পরিপার্শ্বের সঙ্গে ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়ায় তাঁর বেড়ে-ওঠা, শিক্ষাগ্রহণ ও শিক্ষাদান-পর্বের কাহিনী, ব্যক্তিজীবন, পরিবার, বন্ধুবৃত্ত, শিক্ষকমণ্ডলী ছাপয়ে যা পৌঁছে যায় বৃহত্তর সামাজকি-রাজনৈতিক-সাংস্কৃতিক ভূমিতে। এই সুবাদে ফুটে ওঠে সময় ও সমাজের পরিবর্তনময়তার ছবি, কেবল ঋদ্ধবান এক অবলোকনকারীর দৃষ্টিতে নয়, মহত্বতর এক অংশীর বয়ানে, যিনি ইতহাসকে প্রত্যক্ষ করেছেন নিবিড়ভাবে তার চেয়েও গভীরভাবে চেয়েছেন ইতিহাস পাল্টে দিতে। দেশভাগপর্ব-কাল থেকে এই স্মৃতিভাস্যের শুরু, কিংবা বলা যায় তারও আগে, বঙ্গীয় মুসলিম মধ্যবিত্ত সমাজে আধুনিক শিক্ষার অভিঘাতে সৃষ্টি আলোড়ন থেকে জন্ম নেয়া আপন পারিবারিক পরিমণ্ডল থেকে কথকতার সূচনা। বালকের চোখে আমরা দেখি কলকাতার এক উদার পরিবেশ কীভাবে দুলে ওঠে সংঘাত ও হানাহানির খণ্ডিত চেতনায়, দেশভাগের পর ঢাকার জীবন তাঁকে ঠেলে দেয় ঝড়ের চোখের কেন্দ্রবিন্দুতে এবং তিনি বহুব্যাপ্তভাবে সেই উত্তাল সময়ের মধ্যে নিজেকে ছড়িয়ে দেন। ভাষা আন্দোলন, সাহিত্য সম্মেলন, বুদ্ধিবৃত্তিক জাগরণ ইত্যাদি ভাবগত আলোড়নের সমান্তরালে বয়ে চলে স্বাধিকার চেতনাদীপ্ত জাতীয় রাজনৈতিক আন্দোলন, এসবের সঙ্গেই ছিল তাঁর যোগ ছিল নিবিড়। আবার উচ্চশিক্ষা গ্রহণকল্পে বিদেশে অবস্থানকালে সমকালীন আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপট তাঁর অভিজ্ঞতায় বিপুল ছাপ এঁকে যায়। জীবন-পথ পরিক্রমণে সদা-সর্বদা তিনি বহন করেছেন দেশ ও মানুষের জন্য প্রবল ভালোবাসা, সম্পৃক্ত হয়েছেন বহুবিধ জাগরণী কর্মকাণ্ডে। সারল্য, মাধুর্য ও কৌতুকের সঙ্গে ব্যক্তিজীবনের অন্তরঙ্গ ঘরোয়া গল্পকথার মধ্য দিয়ে তিনি মেলে ধরেন স্বদেশ ও স্ব-সমাজের বিশাল পরিধি, ব্যক্তিকে অবলম্বন করে ব্যক্তিসত্তার বাইরে এমন এক মহাব্যাপ্তি যেখানে আমরা অনুভব করি কালের নিরবধি প্রবাহ, পরিবর্তমান যুগ ও সময়ের পরম্পরা। ফলে তাঁর রচনা নিছক স্মৃতিগ্রন্থ হয়ে থাকে নি, হয়েছে এক মহাগ্রন্থ নিজেদের জানা ও চেনার। এমন স্মৃতিভাষ্যে যে-কোনো সাহিত্যেরই চিরায়ত সম্পদ।

সূচিপত্র
* জন্মের আগে
* জেগে উঠিলাম
* অন্য কোনোখানে
* আলো ভুবনভরা
* বিচিত্র চিত্র
* প্রথম প্রবাস
* সমাজ-সংসার
* নতুন ঠিকানা

Download and Join our Facebook Group

আমার দেশ আমার শতক - নীরদ চন্দ্র চৌধুরী

amarboi আমার দেশ আমার শতক - নীরদ চন্দ্র চৌধুরী

"জীবনের সবচেয়ে বড় ঐশ্বর্য্য মনে, বাহিরে নয়। একদিন ইতিহাসের আবর্তনে এক অপরূপ ঐশ্বর্য্য বাঙালী জীবনে আসিয়াছিল। তাহার কথা ভুলিবার নয়, তবু বাঙালীও ভুলিতেছে দেখিয়া এই বইটা লিখিয়াছি। ভালবাসাকে চিরস্থায়ী করিতে না পারিলেও ভালবাসার স্মৃতি অন্তত স্থায়ী করিতে চাই।"
----- নীরদ চন্দ্র চৌধুরী।
"বঙ্কিমচন্দ্র বলিয়া গিয়াছেন, ইংরেজ আমাদিগকে অরাজকতা হইতে উদ্ধার করিয়াছেন। তাহা ছাড়া বঙ্কিম সম্বন্ধে আর একটি গল্পও আছে। তিনি যখন ডেপুটিগিরির জন্য প্রার্থী হন, তখনও সিপাহী- বিদ্রোহের জের চলিতেছে। যে পদস্থ ইংরেজ কর্মচারীর নিকট তিনি গিয়াছিলেন, তিনি তাঁহাকে এই যুদ্ধের ফলাফল সম্বন্ধে প্রশ্ন করিলেন। বঙ্কিম উত্তর দিলেন, ইংরেজের জয় সম্বন্ধে বিন্দুমাত্র দ্বিধা থাকিলে তিনি চাকুরির জন্য আসিতেন না।"
"মুসলমান আধিপত্যের যুগে হিন্দু-মুসলমানের যে মিলন দেখিতে পাওয়া যায় তাহার একটা হিন্দুর দিকও আছে। তখন সাধারণ মুসলমান যেমন ষোল আনা গোঁড়া মুসলমান ছিল না সাধারণ হিন্দুও তেমনই ষোল আনা গোঁড়া হিন্দু ছিল না। এই যুগে হিন্দু সভ্যতার প্রাচীন গৌরবের কোন স্মৃতি ছিল না।সুতরাং হিন্দুর সংস্কৃতি লোপ পাইবে এই আশঙ্কা করিয়া সাধারণ হিন্দু-মুসলমানেরর আচার,ভাষা, পোশাকপরিচ্ছদ, এমন কি ধর্মবিশ্বাসও গ্রহন করিতে সঙ্কোচ বোধ করিত না। এই কারণেই তখন দুই সম্প্রদায়ের সাধারণ লোকের মধ্যে সৌহার্দ্য থাকাই স্বাভাবিক বলিয়া মনে করিতে হইবে। বিবাদ হইলেই বরঞ্চ আশ্চর্য হইবার কথা।"
"যে কারণে ঊনবিংশ শতাব্দীতে ভারতবর্ষের হিন্দুরা পূর্বাপেক্ষা অনেক বেশী হিন্দুভাবাপন্ন হইয়া উঠেন, ঠিক সেই কারণে মুসলমানরাও এই যুগে অনেক বেশী ইসলামীভাবাপন্ন হইয়া পড়েন।"
'দাই হ্যান্ড গেট অ্যানার্ক' এবং টেলিগ্রাফে তাঁর ইংরেজদের তিরস্কার-করা প্রবন্ধ পড়ে দ্য নিউ ইয়র্ক রিভিউ-তে আয়ান বুরুম লিখেছেন : সত্তর বছর আগে বাংলায় চৌধুরী অপমান বোধ করেছিলেন, কারণ কতগুলি আত্মম্ভরী ইংরেজ তাচ্ছিল্যের হাসি হেসেছিল ব্রিটিশ সংস্কৃতিতে তাদের চেয়ে তাঁর গভীরতর জ্ঞান দেখে। Now he has the last laugh,বুরুম আরও বলেছেন: Now that every politician feels compelled to talk about values again, Nirad C. Chaudhuri is fast becoming the very thing he had avoided with such success for ninety years:fashionable.

Download and Join our Facebook Group
 
Support : Visit our support page.
Copyright © 2015. Amarboi.com - All Rights Reserved (এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি)
Website Published by Amarboi.com
Proudly powered by Blogger.com