Pages

ডাক্তার জিভাগো - বোরিস পাস্তেরনাক

ডাক্তার জিভাগো -  বোরিস পাস্তেরনাক
ডাক্তার জিভাগো - বোরিস পাস্তেরনাক
আধুনিক রাশিয়ান সাহিত্যের ইতিহাসে নানা কারণে বোরিস পাস্তেরনাকের নাম বিশিষ্ট স্থান লাভ করেছে। কিন্তু তাঁর রচনার সঙ্গে আমাদের প্রত্যক্ষ পরিচয়ের সুযোগ খুবই কম। অনুবাদ ব্যতীত তিনি বারো-তেরোটি মৌলিক গ্রন্থের লেখক। এদের মধ্যে অধিকাংশই কবিতার বই। তাঁর প্রায় দু’ লক্ষ শব্দ সংবলিত সুদীর্ঘ উপন্যাস ‘ডক্টর জিভাগো’ প্রকাশিত হবার পর য়ুরোপ আমেরিকায় যে প্রবল আন্দোলন আরম্ভ হয়েছিল তার তুলনা বিরল। বিরল এইজন্য বলছি যে, এ বইয়ের মৌলিক গুণাবলী অপেক্ষা সমালোচকদের প্রচার নোবেল কমিটিকে হয়তো বেশি করে প্রভাবান্বিত করেছে, এই অভিযোগ একেবারে অযৌক্তিক বলে মনে হয় না। যাই হাকো, পাস্তেরনাক একটি উল্লেখযোগ্য উপন্যাস লিখেছেন; সুতরাং ‘ডক্টর জিভাগো’ পড়ে ঔপন্যাসিক হিসাবে আমরা তাঁর পরিচয় লাভের সুযোগ পেয়েছি। সুইডিশ আকাদেমি পাস্তেরনাককে পুরস্কার দিতে গিয়ে তাঁর কবিপ্রতিভার কথা বিশেষরূপে উল্লেখ করেছেন।
‘ডক্টর জিভাগো’-র একটি বিশেষ উল্লেখযোগ্য গুণ হল মানুষ ও প্রকৃতির জন্য দরদ। পাস্তেরনাকের বিরুদ্ধে সোভিয়েত সমালোচকদের প্রধান অভিযোগ ছিল তিনি ‘আইভরি টাওয়ারের কবি’। এই উপন্যাস সেই অভিযোগ খণ্ডন করবে। উপন্যাসে যে-সব মানবিক অনুভূতির কথা ছড়িয়ে আছে তা পরিশিষ্টে সংযোজিত চব্বিশটি কবিতার মধ্যে আরও সুন্দরভাবে পাওয়া যায়। ‘ডে-ব্রেক’ কবিতায় জিভাগো এই বিশ্ব-সংসারের প্রতি গভীর প্রীতি প্রকাশ করছেন।
মানবেন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে মাত্র ১৬ বছর বয়সে বইটির অনুবাদ করেন মীনাক্ষী দত্ত। কবিতাগুলোর অনুবাদ ও সম্পাদনা করেছেন বুদ্ধদেব বসু।