Pages

পদ্মাপাড়ের দ্রৌপদী - কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীর

পদ্মাপাড়ের দ্রৌপদী - কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীর
পদ্মাপাড়ের দ্রৌপদী - কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীর

এটি এমন-সব মানুষের গল্প যারা নিজের দেহ বিক্রি করে তাদের জীবন বহন করে। একে ধরা যায় একজনের গল্প-সেই একজন হতে পারে মুক্তি/শরীফা/চামেলী/আয়েশা/জরিনা কিংবা ওদেরই ভিতর থেকে যে-কেউ। ওরা একজনই বহুজন, বহুজনই একজন। এদের দরজা যেমন আলাদা করে চেনা মুশকিল, তেমনি মানুষও বলতে গেলে একজনই। এমনই ঘরের দরজা, শরীর বা প্রতীক্ষা দিয়ে এক-এক গল্প তৈরি করে। অথবা একটা গল্পকেই বহুজন মিলিয়ে একজন হবার ভিতর সময় পার করতে থাকে। এদেরকে তবু মানুষ বলেই চিহ্নিত করতে হয়, আর মানুষ শেষ পর্যন্ত মানুষই থাকে। ওরা নিজেদের কিছু কথা, কিছু যন্ত্রণা, কিংবা মানুষের ভাষায় হাহাকারের কথাও হয়তো বলে যায়। লেখকের কাছে চরিত্রের ধরন খুব বড়ো নয়, মানুষই বড়ো। মানুষের সামগ্রিক জীবনের চেয়ে বড়ো কিছু আছে বলেও তিনি মনে করেন না। যার ফলেই দেহজীবীদের নিয়েই অনায়াসে উপন্যাস লিখতে শুরু করেন। জনপদের অবয়ব নির্মাণের প্রয়ােজন, সময়ের প্রেক্ষিত, বস্তুনিষ্ঠতার দাপট ইত্যাদির দরুন প্রথাগত ভাষা বদলে যায়। এমনকি একই শব্দ বা বাক্য নানাভাবে ব্যবহার করেছেন তিনি। স্ল্যাং বা সভ্য-ভব্য ভাষার সীমারেখা/রুচি-এ-সবের কিছুই তিনি বলবত রাখেন না। লােকায়ত ভাষার স্বাচ্ছন্দ্যপ্রবাহে তা আরও প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে। তাতে জীবনের শক্তি এক-একভাবে প্রকাশ পেতে থাকে। পদ্মাপাড়ের ওই দেহজীবী মানবীদের জীবনে কতিপয় সম্ভাবনা অথবা যন্ত্রণা তৈরি করে। এটি এমনই এক প্রাচীন পেশার সমকালীন গল্প যা যুগপৎ হাহাকার আর গৌরব বহন করে। সেখানেও রক্তমাংসের এক জীবনস্রোত বহমান থাকে।


বই নিয়ে শুধুমাত্র বই নিয়েই আমাদের এই প্রয়াস। ধ্বংস ও ধসের সামনে বই সবচেয়ে বড় প্রতিরোধ। বই আমাদের মৌলিক চিন্তাভাবনার শাণিত অস্ত্র। বইয়ের অস্তিত্ব নিয়ে চারিদিকে আশঙ্কা, বই নিয়ে শুধু মাত্র বই নিয়েই আমাদের এই প্রয়াস। ধ্বংস ও ধসের সামনে বই সবচেয়ে বড় প্রতিরোধ। বই আমাদের মৌলিক চিন্তাভাবনার শাণিত অস্ত্র। বইয়ের অস্তিত্ব নিয়ে চারিদিকে আশঙ্কা, নতুন প্রজন্ম চকঝমকের আকর্ষণে বইয়ের দিক থেকে ঘুরিয়ে নিচ্ছে মুখ। আমাদের এ আয়োজন বইয়ের সাথে মানুষের সম্পর্ককে অনিঃশেষ ও অবিচ্ছিন্ন করে রাখা। আশাকরি আপনাদের সহযোগিতায় আমাদের এই ইচ্ছা আরোও দৃঢ় হবে। দুনিয়ার পাঠক এক হও! বাংলা বই বিশ্বের বিবিধ স্থানে, সকল বাংলাভাষীর কাছে সহজলভ্য হোক!