Pages

ভ্রমণ সমগ্র - শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়

amarboi
ভ্রমণ সমগ্র - শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়

এই গ্রন্থে যা সংকলিত হল তার সবই আমার কেজো ভ্রমণের বৃত্তান্ত। বেড়াতে যাওয়ার জন্য খুব বেশি বেরোইনি। ভবঘুরে নই, বরং ভবকুড়ে। তবে ঠাকুরের কাজে (পরমপ্রেমময় শ্রীশ্রী ঠাকুর অনুকূলচন্দ্র) বাংলা বিহার আর আমাদের গাঁ-গঞ্জ চষে ফেলতে হয়েছে। সুন্দরবনের দুর্গম অঞ্চল থেকে কাছাড়ের অজানা কন্দর সর্বত্রই আজও যেতে হয়। আর আনন্দবাজার পত্রিকার বিশেষ প্রতিবেদক হিসেবে ঘুরতে হয়েছে প্রায় গোটা ভারত আর আমেরিকা।

এই পরিভ্রমণ এখনও অব্যাহত আছে। সাহিত্যসভা, বইমেলায়, সরকারি বৈঠক ইত্যাদির আমন্ত্রণ তো আছেই। আমি যেহেতু তেমন ভ্রমণ-পিপাসু নই, সেই জন্যই ভ্রমণকাহিনি লেখার প্রয়াসও আমার ছিল না। পত্রিকা-সম্পাদকদের তাগিদেই যা কিছু ভ্রমণ বিষয়ক লেখা আমার।

এমনকি রাম বনবাসের পথে যাত্রার ইতিকাহিনিটিও শেষ হয়নি। কিন্তু অনেক বিশিষ্টজন আমার ওই বৃত্তান্তটাকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছিলেন। তবু শেষ করতে ইচ্ছে হয়নি।

যাই হোক, সংকলিত এই বৃত্তান্তগুলিতে আমার বিচিত্র অভিজ্ঞতা ও অবলোকনের কথা রইল। রচনাগুলি ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিল। এখন দুই মলাটের মধ্যে বন্দি করা হল তাদের। পাঠকেরা কতদূর আগ্রহী হবেন তা কে জানে।

বিনীত
শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়
কলকাতা
বই নিয়ে শুধুমাত্র বই নিয়েই আমাদের এই প্রয়াস। ধ্বংস ও ধসের সামনে বই সবচেয়ে বড় প্রতিরোধ। বই আমাদের মৌলিক চিন্তাভাবনার শাণিত অস্ত্র। বইয়ের অস্তিত্ব নিয়ে চারিদিকে আশঙ্কা, বই নিয়ে শুধু মাত্র বই নিয়েই আমাদের এই প্রয়াস। ধ্বংস ও ধসের সামনে বই সবচেয়ে বড় প্রতিরোধ। বই আমাদের মৌলিক চিন্তাভাবনার শাণিত অস্ত্র। বইয়ের অস্তিত্ব নিয়ে চারিদিকে আশঙ্কা, নতুন প্রজন্ম চকঝমকের আকর্ষণে বইয়ের দিক থেকে ঘুরিয়ে নিচ্ছে মুখ। আমাদের এ আয়োজন বইয়ের সাথে মানুষের সম্পর্ককে অনিঃশেষ ও অবিচ্ছিন্ন করে রাখা। আশাকরি আপনাদের সহযোগিতায় আমাদের এই ইচ্ছা আরোও দৃঢ় হবে। দুনিয়ার পাঠক এক হও! বাংলা বই বিশ্বের বিবিধ স্থানে, সকল বাংলাভাষীর কাছে সহজলভ্য হোক!