Pages

তিসিডোর - কেতকী কুশারী ডাইসন

amarboi
তিসিডোর - কেতকী কুশারী ডাইসন
তিসিডোর লিখেছেন বুদ্ধদেব বসু ও জীবনানন্দ দাশের সাহিত্য এবং জীবনালেখ্য অবলম্বনে। এটি উপন্যাস নয়, আন্তজীবনী নয়, সমালোচনা-সাহিত্য নয়, আবার গল্প কিংবা অনুবাদও নয়। অথচ বইয়ের সর্বত্র ছড়িয়ে আছে এসবের কিছু কিছু উপাদানের ছাপ। ছড়ানো বলতে এলোমেলো-অগোছালোভাবে নয়; বরং সুশৃঙ্খলভাবে সন্নিবেশন করা হয়েছে সব। ভূমেন্দ্র গুহের সম্পাদনায় প্রকাশিত সফলতা-নিষ্ফলতা উপন্যাসে বুদ্ধদেব বসুকে খানিকটা হেয়, ক্ষুদ্র করে উপস্থাপনের চেষ্টা করেছেন জীবনানন্দ দাশ। কিন্তু বুদ্ধদেব বসু যে ক্ষুদ্র, অপাঙ্ক্তেয়, উপেক্ষার পাত্র নন, সেটা প্রমাণ করার চেষ্টা করেছেন কেতকী কুশারী ডাইসন তিসিডোরে। ব্যক্তিগত দায় ও অনুরাগ থেকেই তিনি এটা করেছেন। কেতকীর পরিবার ও বুদ্ধদেব বসু কলকাতার রাসবিহারী অ্যাভিনিউয়ে পাশাপাশি বাস করতেন। তিনি খুব কাছ থেকে বুদ্ধদেব বসুকে দেখেছেন – তাঁর অনুরাগী ছিলেন। ব্যঙ্গান্তক চরিত্র হিসেবে বুদ্ধদেবকে তুলে ধরা যে জীবনানন্দের যথাযথ হয়নি, সঠিক হয়নি – নানা যুক্তি-প্রমাণের সাহায্যে কেতকী কুশারী সেটা প্রমাণের চেষ্টা করেছেন এই গ্রন্থে। তিসিডোরে কেতকী আবির্ভূত হয়েছেন একাধারে গবেষক ও সমালোচক হিসেবে।
বই নিয়ে শুধুমাত্র বই নিয়েই আমাদের এই প্রয়াস। ধ্বংস ও ধসের সামনে বই সবচেয়ে বড় প্রতিরোধ। বই আমাদের মৌলিক চিন্তাভাবনার শাণিত অস্ত্র। বইয়ের অস্তিত্ব নিয়ে চারিদিকে আশঙ্কা, বই নিয়ে শুধু মাত্র বই নিয়েই আমাদের এই প্রয়াস। ধ্বংস ও ধসের সামনে বই সবচেয়ে বড় প্রতিরোধ। বই আমাদের মৌলিক চিন্তাভাবনার শাণিত অস্ত্র। বইয়ের অস্তিত্ব নিয়ে চারিদিকে আশঙ্কা, নতুন প্রজন্ম চকঝমকের আকর্ষণে বইয়ের দিক থেকে ঘুরিয়ে নিচ্ছে মুখ। আমাদের এ আয়োজন বইয়ের সাথে মানুষের সম্পর্ককে অনিঃশেষ ও অবিচ্ছিন্ন করে রাখা। আশাকরি আপনাদের সহযোগিতায় আমাদের এই ইচ্ছা আরোও দৃঢ় হবে। দুনিয়ার পাঠক এক হও! বাংলা বই বিশ্বের বিবিধ স্থানে, সকল বাংলাভাষীর কাছে সহজলভ্য হোক! সাধ্যের মধ্যে থাকলে বইটি কিনবেন এই প্রত্যাশা রইলো।