Pages

তোমাদের কাছে বাংলাদেশ কৃতজ্ঞ - মুহম্মদ জাফর ইকবাল

amarboi.com
তোমাদের কাছে বাংলাদেশ কৃতজ্ঞ - মুহম্মদ জাফর ইকবাল
আজ আমি এসেছি তোমাদের কাছে ক্ষমা চাইবার জন্য!
আমি পত্রিকায় লিখেছি যে, এই
নতুন জেনারেশন খালি
ফেসবুকে লাইক দেয়, এরা আর কিছু করে না।
আমি লিখেছি_ এরা খালি বল্গগ করে, এরা আর কিছু করে না_
এরা রাস্তায় নামে না।
তোমরা আমাকে ভুল প্রমাণিত করেছো।

এই দেখো এখানে বল্গগাররা আছে, এই বল্গগাররা
সারা পৃথিবীতে যেটা হয় নাই এরা সেইটা ঘটিয়ে দিয়েছে।
তোমাদের কাছে ক্ষমা চাই! আমাকে ক্ষমা করেছো সবাই?

আজকের মত আনন্দের দিন আমি আমার জীবনে কোনোদিন পাই নাই!!
২০১৩ সাল ১৯৭১ হয়ে গিয়েছে!! তোমরা যারা ১৯৭১ দেখো নাই
সুযোগ পেয়েছো ২০১৩ সালকে আবার ১৯৭১ হিসেবে দেখার জন্য।

বাংলাদেশের মত সুন্দর দেশ পৃথিবীতে নাই!
উপরে তাকাও কী সুন্দর আকাশ!!
তাকাও কত সুন্দর গাছ!!
একজন আরেকজনের দিকে তাকাও কত সুন্দর মানুষ!!
তোমাদের মত সুন্দর মানুষ পৃথিবীতে নাই।

আমরা অনেক সৌভাগ্যবান! যখন যেটা দরকার সেটা পেয়েছি।
১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধুকে পেয়েছি।
যখন যুদ্ধের সময় হয়েছে, তাজউদ্দীন আহমদ আমাদের যুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়েছেন।
তখন মুক্তিযোদ্ধাদের জন্ম হয়েছে, তারা মুক্তিযুদ্ধ করেছে।
এখন তোমাদের দরকার, তোমাদের জন্ম হয়েছে।

জাহানারা ইমাম এখানে আন্দোলন করেছিলেন, জাহানার ইমামের ছবি আছে।
আমি শিউর, উনি উপর থেকে আমাদের দিকে তাকিয়ে আছেন_ আর আনন্দে হাসছেন!!
ত্রিশ লক্ষ শহীদ উপরে আছে, তারা আমাদের দিকে দেখছে
আর বলছে_ 'থ্যাংক ইউ', 'থ্যাংক ইউ'_ তোমাদেরকে ধন্যবাদ!

একটা সময় ছিল যেখানে হানাদার বলতে হতো, পাকিস্তান বলা যেত না।
টেলিভিশনে রাজাকার কথাটা মানুষের মুখ থেকে বলা যেত না।
তখন হুমায়ূন আহমেদ টিয়া পাখির মুখ দিয়ে বলেছিল_ 'তুই রাজাকার'!!

আমি বলব, তোমরা বলবে, হুমায়ূন আহমেদ উপর থেকে দেখছে_
হুমায়ূন আহমেদ দেখো_

কাদের মোল্লা! কাদের মোল্লা!
(জনতা_ তুই রাজাকার! তুই রাজাকার!)
সাঈদী! সাঈদী!
(জনতা_ তুই রাজাকার! তুই রাজাকার!)
সাকা চৌধুরী! সাকা চৌধুরী!
(জনতা_ তুই রাজাকার! তুই রাজাকার!)
কামারুজ্জামান! কামারুজ্জামান!
(জনতা_ তুই রাজাকার! তুই রাজাকার!)
নিজামী! নিজামী!
(জনতা_ তুই রাজাকার! তুই রাজাকার!)
গোলাম আযম! গোলাম আযম!
(জনতা_ তুই রাজাকার! তুই রাজাকার!)

বাংলাদেশে যত শহীদ হয়েছিলো তারা সবাই এখন উপর থেকে তাকিয়ে আমাদের দেখছে, আর বলছে_
এই বাংলাদেশকে আর কেউ কোনোদিন পদানত করতে পারবে না!

তোমাদেরকে আমি অনুরোধ করি_
যখন লেখাপড়ার কথা তখন লেখাপড়া করবে।
যখন গান গাওয়ার কথা তখন গান গাইবে।
যখন কবিতা লেখার কথা কবিতা লিখবে।
ছবি আঁকার কথা ছবি আঁকবে।
ভাস্কর্য বসানোর কথা ভাস্কর্য বসাবে।
প্রেম করার কথা প্রেম করবে।
বাংলাদেশকে পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ দেশে তৈরি করবে।
নোবেল প্রাইজ আনবে।
যখন রাস্তায় নামার দরকার পড়বে তখন রাস্তায় নামবে।

তোমাদের কাছে সারা বাংলাদেশ কৃতজ্ঞ। যত শহীদ আছে সবাই কৃতজ্ঞ, আমরা সবাই কৃতজ্ঞ। ধন্যবাদ সবাইকে।
বল্গগারদেরকে আলাদাভাবে ধন্যবাদ! তারা যেটা করেছে তার কোনো তুলনা নাই। সবাইকে ধন্যবাদ!!

[শাহবাগের প্রজন্ম চত্বরে যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির দাবিতে শুক্রবার আয়োজিত মহাসমাবেশে প্রদত্ত বক্তব্য]

You can follow us on Twitter or join our Facebook fanpage or even follow our Google+ Page to keep yourself updated on all the latest from Bangla Literature. Also try our chrome extension.